-23%

AMETHYST: অ্যামেথিষ্ট

৳ 1,300.00 ৳ 1,000.00

The Stone of Spirituality – – আধ্যাত্মিক পাথর ।

পান্নাজাতীয় মূল্যবান পাথর বিশেষ, অ্যামেথিষ্ট ।

প্রধান চক্র-: মুকুট বা মাথার চাঁদি ।

স্পন্দনকৃত সংখ্যা : ০৩

  • Description
  • Reviews (0)

Product Description

Metaphysical Healing Properties বা বিমূর্ত নিরাময় গুণাবলী : অ্যামেথিষ্ট মনের পাথর। বিরক্তিবোধ ও সংশয়ের ক্ষেত্রে প্রশান্তি ও স্পষ্টতা আনয়নে সহায়তা করে। আপনি যদি আপনার অন্তর্জ্ঞান, অনুভব অথবা ফিলিংস বা আপনার গুরুত্বের সংস্পর্শে আসতে চান তাহলে অ্যামেথিষ্ট পরিধান করুন। এটা একজনকে সকল আধ্যাত্মিক বিষয়, মরমি ও অতি প্রাকৃত বিষয় শিখতে সহায়তা করে। বিশেষ করে এটা আত্ম-সংযম, অ্যালকোহল, খাদ্য, যৌনতা ও অন্যান্য আসক্তির ক্ষেত্রে সহায়তা করে।

চাপ : এর সর্বোচ্চ মেটাল ইফেক্টের কারণে এটা অতিরিক্ত কাজ, অতিচাপ অথবা ভারাবনত ধাতব অবস্থার জন্য খুবই ভালো। একে পরমভাবে আধ্যাত্মিক পাথর হিসেবে গণ্য করা হয়। পুরাতন কথনে লেখা আছে যে, অ্যারণ, জুইশ সর্বোচ্চ পুরোহিত, তার বুকের প্লেটে অ্যামেথিষ্ট পরতেন, বলা হয় দর্শণ ও প্রকাশ প্রবর্তন করার জন্য। অনেক মানুষ এ কারণে তাদের বালিশের নীচে এ পাথর রেখে ঘুমায়। ক্যাথলিক বিশপ এখনও তার ডান হাতের দ্বিতীয় আঙ্গুলে অ্যামেথিষ্ট আংটি পরছেন।

আসক্তি: অ্যামেথিষ্ট শব্দটি এসেছে গ্রীক শব্দ অ্যামিথিউমাস থেকে, যার অর্থ – পান করা হয়েছে। গ্রীকদের সুরাদেবতা বাক্কুসের তরুণী থেকে পাথরে রূপান্তরিত হওয়া বিষয়ে একটি প্রাচীন পুরাণ রয়েছে যে, তিনি মূর্তির উপর ঢেলেছিলেন, একে রক্তবর্ণ হিসেবে বর্ণনা করে এবং অ্যামেথিষ্ট সৃষ্টি করে। অ্যামেথিষ্ট পান পাত্রের ক্ষেত্রে বলা হত যে, এটা পানকারীকে পানীয়ের চেতনার দ্বারা অতিরিক্তভারাবনত হওয়া থেকে রক্ষা করে। বর্তমানে ঐসব আসক্তি কাটিয়ে ওঠার প্রচেষ্টা, বিশেষ করে অ্যালকোহলের আসক্তি থেকে, সহায়তা হিসেবে অ্যামেথিষ্ট শক্তি ব্যবহার করুন।

সুরক্ষা : অ্যামেথিষ্ট সুরক্ষার স্ফটিক, কারণ এটা আকর্ষণের চেয়ে বিকর্ষণ বেশী করে।

আধ্যাত্মিকতা : অ্যামেথিষ্ট নিরাময় ও স্বার্থপরহীনতা লালন করে এবং এটা বর্ধিত মহত্ত্ব, আধ্যাত্মিক সচেতনতা, ধ্যান, ভারসাম্য, আধ্যাত্মিক ক্ষমতা, আত্মার শান্তি ও ইতিবাচক রূপান্তরের সাথে সম্পর্কিত। অনেকে বলেন একে রূপান্তরের পাথর বলা উচিত। ‘মেটামরফোসিস’ নামেও পরিচিত।

বর্ণ : হালকা বেগুনী থেকে গাঢ় রক্তবর্ণ। বেগুনী হচ্ছে আধ্যাত্মিকতার রঙ।

দৈহিক নিরাময় গুণাবলী : হরমোন উৎপাদন উন্নত করতে সহায়তা করে, স্নায়ুতন্ত্র, অনিদ্রা, শ্রবণশক্তি, পরিপাকনালী, হৃদপিন্ডকে উপশম প্রদান করে। অনিদ্রা, মাথাব্যাথা, শ্রবণে বিশৃঙ্খলা, অঙ্গস্থিতি ও কঙ্কালতন্ত্র, পাকস্থলী, ত্বক ও দাত, আর্থাইটিসের চিকিৎসার ক্ষেত্রে এটা মহৌষধ।

নেতিবাচক বা যা যা বর্জন করে: অতিরিক্ত অসংযমতা, মর্মপীড়া, ক্রোধ, অপরাধবোধ, রাগ, সংশয়, অধৈর্য্য, অসন্তুষ্টি, অনিদ্রা ও দু:স্বপ্ন।

যেসবে গুরুত্ব প্রদান করে : পরিস্কার, পরিচ্ছন্নতা, শুদ্ধতা, নবকাঠামো ও নবায়ন। আধ্যাত্মিক সক্ষমতা, আধ্যাত্মিক সচেতনতা, পরিতৃপ্তি, শান্তি, স্থিতিশীলতা, প্রশান্তি, ক্ষমা ও সহনশীলতা প্রদান করে ।

ক্যারিয়ার : যাজক, পুরোহিত, আধ্যাত্মিক নেতা, কাউন্সেলর, থেরাপিষ্ট।

প্রয়োগ : ধ্যান, পুনর্বাসন, চাপ।

সমন্বয় : যখন গোলাপি খনিজের সাথে সমন্বয় করা হয়। তখন অ্যামেথিষ্টের কার্যকারিতা বৃদ্ধি পায়। অ্যামেথিষ্ট মনকে প্রশান্ত করে, পক্ষান্তরে গোলাপ স্ফটিক হৃদপিন্ডকে প্রশমিত করে এবং অতীত আবেগীয় ক্ষত উপশম করে। একই সাথে এগুলো হৃদয়, মন ও আত্মার ভারসাম্য বিধান করে। স্বচ্ছ কোয়ার্টাজ স্ফটিক (শক্তি প্রদানকারী ও পরিবর্ধক) উভয় স্ফটিকের প্রভাব বা কার্যকারিতা বৃদ্ধি করবে। এটি কোয়ার্টস গ্রুপের (Quartz Group) অন্তর্ভুক্ত স্বচ্ছ রত্ন। জেমোলজিষ্টগণ এটাকে সন্ধামণি বলে থাকেন । Amethyst পাথরের রঙ জামের ভিতরের অংশের মতো, তাই এটিকে অনেক সময় জ্যামোনিয়া বলা হয়ে থাকে। বর্ণের দিক থেকে কৃষ্ণাভ বেগুনী বা জামের ভিতরের বর্ণের মত বেগুনী বর্ণের, কচুরী পানার ফুলের মতো হালকা বেগুনী বর্ণের, মনোরম রঙে দেখা যায়। এমিথিষ্ট তিক্তরস বিশিষ্ট,শীতলওঠান্ডাগুণযুক্ত।

প্রাপ্তিস্থান: উরাল পর্বত জ্যামোনিয়ার প্রধান প্রাপ্তিস্থান। অন্যান্য দেশগুলো হলো ব্রাজিল, উরুগুয়ে, দক্ষিণ যুক্তরাষ্ট্র। রাশিয়া ‘কারিনা ক্যাথরিদ দি গ্রেট’-এর জ্যামোনিয়া রত্ন সংগ্রহ জগৎবিখ্যাত।

কাঠিন্যতা (Hardness): ৭
আপেক্ষিক গুরুত্ব (Specific Gravity): ২.৬৫
প্রতিসরণাংক (Refractive Index): ১.৫৩২-১.৫৫৪
বিচ্ছুরণ (Dispersion): ০.০১৩

উপকারিতা: অ্যামেথিষ্ট একটি উপরত্ন। শনির বিকল্প রত্ন হিসাবে ব্যবহার হয়। জন্ম রাশি ও হস্তরেখা বিচার শনির অশুভত্ব দূরীকরণার্থে ধারণ করা হয়। পাশ্চত্যের মেয়েরা বিশ্বাস করতেন যে অ্যামেথিষ্ট ব্যবহারে স্বামী-স্ত্রী প্রেম চিরস্থায়ী হয় ও অবিবাহিত মেয়েদের শীঘ্র বিবাহ হয়।

উপাদান (Chemical Composition): সিলিকন অক্সাইড , লিথিয়াম এবং বালুকার সংমিশ্রণে সৃষ্ট।

সঠিক রাসায়নিক বিশ্লেষণ, শুভ তিথীযুক্ত দিন ব্যতীত এবং বিশুদ্ধ সিদ্ধান্ত মতে শোধন না করে যে কোন রত্ন পাথর ধারণ করা অনুচিত। এতে করে শুভ ফল পাবেন না । শোধন প্রক্রিয়া সময় সাপেক্ষ তথাকথিত প্রচলিত ভ্রান্ত সাধারণ নিয়মে দুধ, মধু, গোলাপজল, জাফরান , আতর, জম জম কূপের পানি, নদীর পানি কিংবা গঙ্গা জল ইত্যাদি দ্রব্য / বস্তু দ্বারা শোধন কখনও করা হয় না বা করার বিধান শাস্ত্রে নেই ।

আমাদের প্রতিষ্ঠান থেকে ক্রয়কৃত রত্ন পাথর আমরা বিশুদ্ধ সিদ্ধান্ত মতে শোধন করে দিয়ে থাকি বিনিময়ে কোন অর্থ গ্রহণ করি না ।

Reviews

There are no reviews yet.


Be the first to review “AMETHYST: অ্যামেথিষ্ট”