একুয়ামেরিন

AQUAMARINE: সবুজ পান্নাAQUAMARINE Stone

The Stone Of Courage And Serenity – সাহস ও প্রশান্তির পাথর।

প্রধান চক্র: গলা

স্পন্দনকৃত সংখ্যা : ০১

উপশম, প্রশান্ত করার জন্য এবং ভয় ও আতঙ্ক লাঘব করতে ব্যবহৃত হয়।
পানিতে নিরাপদ ভ্রমণের অগ্রগতিতে সহায়তা করে।
বিরক্তবোধ, অস্থিরতা মুক্ত করে।
বিষাদের বিরুদ্ধে লড়াই করে।

Metaphysical Properties বা বিমূর্ত গুণাবলী: সবুজ পান্না সাহসের পাথর। এটা বুদ্ধিবৃত্তিক যুক্তি প্রদর্শন প্রক্রিয়াকে ত্বরান্বিত করে এবং প্রশিক্ষণের মাধ্যমে অজেয় করে-শুধু বর্তমান ও ভবিষ্যতের শিক্ষকদের মাধ্যমে অতিক্রান্ত জ্ঞানেরই নয় বরং এর নিজেরও। নীলাভ সবুজ পান্না একটি ঐশ্বরিক ও চিরস্থায়ী রঙ, কারণ এটি আকাশের রঙ। সবুজ পান্না, পানিরও রঙ, এর রয়েছে প্রাণদায়ক গুণাবলী। এই পাথরকে সমুদ্রের সাথে সামঞ্জস্য বিধান করা হয় এবং আমাদেরকে সমুদ্রের প্রাকৃতিক চেতনার সংস্পর্শে আসতে সহায়তা করে। কিছু সময় নিন, আপনার চোখ বন্ধ করুন, গভীরভাবে শ্বাস নিতে থাকুন এবং স্মরণ করুন যে, আপনি গোধূলি লগ্নে সমুদ্র তীরে বসে আছেন, পানি আসছে, মৃদুমন্দ শীতল বায়ু প্রবাহিত হচ্ছে। সবুজ পান্না এটাই আপনাকে উপহার দেয়। লোক কাহিনী অনুসারে মৎস্য কন্যার বক্ষ ভান্ডার থেকে এর উৎপত্তি এবং এর বয়সের জন্য নাবিকদের সৌভাগ্য আনয়নকারী পাথর হিসেবে বিখ্যাত হয়েছে। অবকাশ যাপনে ও প্রমোদ তরীতে গ্রহণের জন্য উত্তম পাথর।

যোগাযোগ : আপনার যোগাযোগ দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য এ পাথর চমৎকার। যেসব দম্পতিদের মধ্যে যোগাযোগ সমস্যা রয়েছে তারা বন্ধুসুলভ উপায়ে এসব মতানৈক্য সমাধান করার ক্ষেত্রে উক্ত পাথরকে সহায়ক হিসেবে পায়। এটা গলা চক্রকে উদ্দীপিত, সক্রিয় ও পরিস্কার করে।

ভারসাম্য : সচেতনতার আধ্যাত্মিক পর্যায়ের সাথে অধিক সামঞ্জস্যপূর্ণ হওয়ার ক্ষেত্রে সহায়তা করে এবং কেন্দ্রীভূত থাকে।

সেবা: পৃথিবীর প্রতি মানবিক সেবার আদর্শ ও মানবিক উন্নয়নকে উৎসাহিত করে হৃদ্যতা, সৃজনশীলতা।

সফলতার প্রতি দৃষ্টি নিবদ্ধ করে : সবুজ পান্না আপনাকে শক্তি প্রদান করে যা আপনার নিজের দায়িত্ব গ্রহণ করার জন্য দরকার। এটা আপনাকে আপনার লক্ষ্যে পৌছার পথে অনঢ় অবস্থান বজায় রাখার ক্ষেত্রে সহায়তা এবং আপনার সফলতা নিশ্চিন্তে সহায়তা করার মাধ্যমে আপনাকে সঠিক পথে রাখবে।

বর্ণ: বিভিন্ন রকম বেরিলের হালকা নীল।

দৈহিক নিরাময় গুণাবলী : গলা, প্লীহা, হৃদপিন্ড, রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা, থাইমাস, লিম্প নোড, বিশেষ করে মুখ, কান, শ্বসন অ্যালার্জি, ভ্রমণ, সামুদ্রিক দেবী ইত্যাদি থেকে সুরক্ষিত রাখে।

গুরুত্ব : আত্মবিশ্বাস, উদ্দেশ্য, প্রশান্তি, শান্তি, প্রশান্তকরণ, বিশোধন, যোগাযোগ ও আত্ম সচেতনতার প্রতি গুরুত্বারোপ করে।

ক্যারিয়ার : পাবলিক স্পীকার, কলেজ ছাত্র, রেডিও ঘোষক, ডিজে, রাজনীতিবিদ, বক্তা, পৌর বা নগর নেতৃবৃন্দ। একোয়ামেরিন হালকা ঘন সবুজ বর্ণের স্বচ্ছ, দীপ্তিপূর্ণ ও সুশ্রী, এটি বেরিল গ্রুপ (Beryl Group) –এর রত্ন। কখনও কখনও হলদে নীলা ও হালকা সাদা বর্ণের পাওয়া যায়। এই রত্নটিকে উর্দুতে বৈরোজ বলে। একোয়ামেরিন-এর বর্ণ পান্না রত্ন থেকে স্বতন্ত্র্য হলেও রাসায়নিক উপাদান হিসাবে পান্না ও একোয়ামেরিন অভিন্ন। ষটকোন তল বিশিষ্ট পরমাণুযোগে একোয়ামেরিন –এর অঙ্গ গঠিত। রত্নটি কাঁচের তুলনায় শীতল। তবে এটা বহু মূল্যবান ও দুষ্প্রাপ্য রত্ন।

উপকারিতা: জ্যোতিষ শাস্ত্রে পান্নার পরিবর্তে এটা বিকল্প রত্ন হিসাবে ব্যবহৃত হয়। বিভিন্ন প্রকার রোগেও বুধ এবং মঙ্গল গ্রহের জন্য খুবই ফলদায়ক। ইহা নারীদের ধারণে দ্রুত ফল দেয়। রত্নটি সাহস সঞ্চার করে এবং মনকে সতেজ রাখে।

উপাদান (Chemical Composition): এ্যালুমিনিয়াম বেরিলিয়াম সিলিকেট সংযোগে সৃষ্ট।
কাঠিন্যতা (Hardness): ৭.৫ – ৮
আপেক্ষিক গুরুত্ব (Specific Gravity): ২.৬৩-২.৯১
প্রতিসরণাংক (Refractive Index): ১.৫৬৭-১.৫৯০
বিচ্ছুরণ (Dispersion): ০.০১৪

প্রাপ্তিস্থান: অষ্ট্রেলিয়া, বার্মা (মায়ানমার), শ্রীলংকা, কেনিয়া, রোডসিয়া, দক্ষিন আফ্রিকা, তানজানিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া প্রভৃতি স্থানে পাওয়া যায় ।

সঠিক রাসায়নিক বিশ্লেষণ, শুভ তিথীযুক্ত দিন ব্যতীত এবং বিশুদ্ধ সিদ্ধান্ত মতে শোধন না করে যে কোন রত্ন পাথর ধারণ করা অনুচিত। এতে করে শুভ ফল পাবেন না । শোধন প্রক্রিয়া সময় সাপেক্ষ তথাকথিত প্রচলিত ভ্রান্ত সাধারণ নিয়মে দুধ, মধু, গোলাপজল, জাফরান , আতর, জম জম কূপের পানি, নদীর পানি কিংবা গঙ্গা জল ইত্যাদি দ্রব্য / বস্তু দ্বারা শোধন কখনও করা হয় না বা করার বিধান শাস্ত্রে নেই ।